×
ব্রেকিং নিউজ :
জাতিসংঘ শান্তিবিনির্মাণ কমিশনের সহ-সভাপতি হয়েছে বাংলাদেশ ১০ জন করোনায় সংক্রমিত দুই বিশিষ্ট ব্যক্তিত্বকে সংবর্ধনা দিয়েছে আরসিসি নেপালকে হারিয়ে শুভ সুচনা বাংলাদেশের ইউক্রেনকে যুদ্ধ বিমান দিতে ‘বছর না হলেও কয়েক মাস’ লাগবে : ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৬ জন করোনায় আক্রান্ত বেসরকারি স্বাস্থ্য সেবা প্রতিষ্ঠানের ফি নির্ধারণ করা হচ্ছে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী শিশুদের জন্য নিরাপদ পরিবেশ গড়ে তুলুন : রাষ্ট্রপতি অঙ্গদানকারী সারাহ ইসলামের মৃত্যু নাই : বিএসএমএমইউ উপাচার্য নদী ভাঙ্গনে বাস্তুচ্যুতদের টেকসই জীবিকার কর্মপরিকল্পনা প্রণয়নে কাজ করছে সরকার : পরিবেশমন্ত্রী
  • আপডেট টাইম : 20/01/2023 07:03 PM
  • 9 বার পঠিত

তুরাগতীরে বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বের প্রথমদিনে আজ শুক্রবার দেশের বৃহত্তম জুমার জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। 
দুপুর দেড়টায় জুমার নামাজের ইমামতি করেন মাওলানা সা’দ কান্ধলভীর বড় ছেলে মাওলানা ইউসুফ বিন সা’দ কান্ধলভী। এরআগে জুমার খুতবা দেয়া হয়।
সকাল থেকেই দেশের বিভিন্ন প্রান্তের মুসল্লিরা টঙ্গীর ইজতেমায় জুমার জামাতে অংশ নিতে পায়ে হেঁটে ইজতেমা ময়দানে আসতে শুরু করেন। এবারের ইজতেমায় সাধারণ মুসল্লিরাও উৎসাহ-উদ্দীপনা নিয়ে আগে ভাগেই অবস্থান নিয়েছেন। অনেকেই মূল সামিয়ানার নিচে স্থান না পেয়ে কামার পাড়া সড়কের পাশে ফুটপাতে পলিথিন টানিয়ে তার নিচে অবস্থান নিয়েছেন। 
জুমার নামাজে অংশ নিতে ভোরে রওয়ানা দেন গাজীপুরের কাপাসিয়ার বাসিন্দা মো. আব্দুল হামিদ। তিনি বলেন, আমি প্রতিবছরই ইজতেমায় আসি। আজকে শুক্রবার ছুটির দিন, তাই লাখো মানুষের সাথে জুমার নামাজ আদায় করলাম।
রাজধানীর উত্তরার বাসিন্দা জাকারিয়া চৌধুরী বলেন, ‘আমার কাছে কোন ভেদাভেদ  নেই, প্রথম পর্ব ও দ্বিতীয় পর্ব  নেই। ইজতেমায় বৃহত্তম জুমার জামাতে অংশ নিয়েছি। নামাজ শেষ এখন বাসায় চলে যাচ্ছি।’
বিশাল মাঠে ওপর বাঁশের খুটি দিয়ে তৈরি করা হয়েছে চটের ছাউনি। প্যান্ডেলে মুসল্লিদের বয়ান শোনার জন্য লাগানো হয়েছে বিশেষ ছাতা মাইক। লাগানো হয়েছে পর্যাপ্ত বৈদ্যুতিক বাতি। শীত উপেক্ষা করে দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে মুসল্লিরা ইজতেমা ময়দানে নির্ধারিত খিত্তায় এসে অবস্থান নিয়েছেন। পুরো ময়দান পূর্ণ হয়ে গেলেও বিভিন্ন যানবাহনে করে এখনও মুসল্লীরা ইজতেমা ময়দানে আসছেন। করোনার কারণে  দীর্ঘ দু’বছর ইজতেমা বন্ধ থাকার পর এবার ইজতেমা অনুষ্ঠিত হচ্ছে বলে বিপুল উৎসাহ নিয়ে মুসুল্লীরা ইজতেমাস্থলে আসছেন। ময়দানে স্থান না পেয়ে অনেকে ফুটপাতে ও খোলা জয়গায় অবস্থান নিয়েছেন।
বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বের মিডিয়া সমন্বয়ক মোহাম্মদ সায়েম জানান, আজ পাকিস্তানের মাওলানা ওসমানের আমবয়ান শেষে সকাল ১০টায় তালিম করেন মাওলানা ইউসুফ কান্ধলভী, আর তা বাংলায় তরজমা করেন মাওলানা মুনির বিন ইউসুফ। জুমার নামাজের পর বয়ান করেন মাওলানা সৈয়দ ওয়াসিফুল ইসলাম, বাদ আসর বয়ান করবেন সাইদ বিন সাদ কান্ধলভী। আর তা বাংলায় তরজমা করবেন মুফতি আজিম উদ্দিন। বাদ মাগরিব বয়ান করবেন ভারতের মাওলানা ইউসুফ বিন সাদ কান্ধলভী, তার বয়ানের তরজমা করবেন মাওলানা জিয়া বিন কাসিম। আগামীকাল শনিবার বাদ ফজর বয়ান করবেন ভারতের মাওলানা ইয়াকুব, তার বয়ান বাংলায় তরজমা করবেন মাওলানা মুনির বিন ইউসুফ। বাদ জোহর বয়ান করবেন তুর্কির মাওলানা ওমর, বাদ আসর বয়ান করবেন মাওলানা ইলিয়াস বিন সাদ কান্ধলভী। তাদের বয়ান বাংলায় তরজমা করবেন মাওলানা ওসামা ইসলাম। বাদ মাগরিব ভারতের মাওলানা আব্দুস সাত্তার বয়ান করবেন। তার বয়ান বাংলায় তরজমা করবেন মাওলানা জিয়া বিন কাসিম।
আগামী রোববার বাদ ফজর ভারতের মাওলানা মুরসালিন বয়ান শুরু করবেন। আর হেদায়তি বয়ান করবেন ভারতের মাওলানা ইউসুফ বিন সাদ কান্ধলভী। তাদের বয়ান বাংলায় তরজমা করবেন মাওলানা জিয়া বিন কাসিম। এরপর আখেরি মোনাজাতও পরিচালনা করবেন মাওলানা ইউসুফ বিন কান্ধলভী।
গাজীপুর মেট্টোপলিটন পুলিশ কমিশনার মোল্যা নজরুল ইসলাম বলেন, বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বের মতো দ্বিতীয় পর্বেও ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। আগত মুসল্লিদের নিরাপত্তা নিশ্চিতে পুরো ইজতেমা ময়দানকে কয়েকটি সেক্টরে ভাগ করে নিরাপত্তা কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। এ উপলক্ষে ময়দানের আশপাশে ৭ হাজার ৫৩৯ জন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য দায়িত্ব পালন করছেন। ইজতেমাকে কেন্দ্র করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী প্রথম পর্বে যেসব নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছিল, এবারও ঠিক আগের মতোই নিরাপত্তা ব্যবস্থা অুঁটট রাখা হয়েছে।
ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান এমপি বৃহস্পতিবার ময়দান পরিদর্শনে এসে বলেন, সরকারি ব্যবস্থাপনায় প্রথম পর্বের ন্যায় দ্বিতীয় পর্বও সুষ্ঠ ও সুন্দরভাবে সম্পন্ন হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে আগত দেশী-বিদেশী মুসল্লিদের সেবায় কাজ করছে বিভিন্ন দপ্তরের হাজার কর্মকর্তা কর্মচারী। ইনশাআল্লাহ সমফভাবেই শেষ হবে ইজতেমা। রোববার আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হবে ৫৬তম বিশ্ব ইজতেমা।
এদিকে টঙ্গীর তুরাগতীরে বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বে যোগ দিতে এসে মফিজুল ইসলাম (৭৫) নামে এক মুসল্লির মৃত্যু হয়েছে। মফিজুল বরগুনার আব্দুল আলীম রানার ছেলে। 
ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বের মিডিয়া সমন্বয়কারী মো. সায়েম জানান, মফিজুল ইসলাম বরগুনা থেকে ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বে যোগ দেন। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত সাড়ে ৩টার দিকে বার্ধক্যজনিত কারণে তার মৃত্যু হয়। ময়দানে জানাজা শেষে মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

ফেসবুকে আমরা...