×
ব্রেকিং নিউজ :
জীবদ্দশায় ভাষা আন্দোলন জাদুঘর দেখে যেতে চান প্রধান বিচারপতি দক্ষিণ সিটিতে ২২১টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নতুন ভবন নির্মাণ করা হবে : মেয়র তাপস এডিপি শতভাগ বাস্তবায়নের তাগিদ গণপূর্তমন্ত্রীর পিএসসির প্রতিটি কাজে স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা নিশ্চিত করার নির্দেশ রাষ্ট্রপতির পুলিশকে জনগণের বন্ধু হয়ে নিঃস্বার্থ সেবা দেয়ার নির্দেশ রাষ্ট্রপতির দেশে বিশৃঙ্খলা তৈরির উদ্দেশ্যেই 'গণতন্ত্র মঞ্চ' পুলিশের ওপর চড়াও হয় : পররাষ্ট্রমন্ত্রী আসন্ন পবিত্র রমজানে সরকারিভাবে বড় ইফতার পার্টি না করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর যারা নির্বাচন বানচাল করতে চেয়েছে তাদের মুখ এখন ফ্যাকাসে হয়ে গেছে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী রমজানে অফিস চলবে সকাল ৯ টা থেকে সাড়ে তিনটা পর্যন্ত জানুয়ারী পর্যন্ত রাজস্ব আয় হয়েছে ১,৯৭,৮৩৯.১২ কোটি টাকার বেশি : অর্থমন্ত্রী
  • প্রকাশিত : ২০২২-০৫-০৬
  • ৭০৯ বার পঠিত
  • নিজস্ব প্রতিবেদক

আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলির সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী এডভোকেট কামরুল ইসলাম এমপি স্বাধীনতার পদক প্রাপ্ত বীর মুক্তিযোদ্ধা ও প্রখ্যাত শ্রমিক নেতা শহিদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বলেছেন, একজন শিক্ষক থেকে শ্রমিক নেতা হয়ে তৃণমূল পর্যায় থেকে জাতীয় সংসদ সদস্য হিসেবে আমৃত্যু তিনি মানুষের কল্যাণে কাজ করেছেন।
তিনি বলেন, বিএনপি-জামাত জোটের ষড়যন্ত্রের শিকার হয়ে বীর মুক্তিযোদ্ধা আহসান উল্লাহ মাস্টারকে প্রাণ দিতে হয়েছে। তার হত্যাকারীরা এখন আবার আওয়ামী লীগ সরকারের বিরুদ্ধে নানা অপতৎপরতায় লিপ্ত হয়েছে। জনভিত্তি হারিয়ে বিএনপি এখন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন ও সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন করার হুমকি দিচ্ছে। বিএনপি নির্বাচনে অংশ না নিয়ে মনোনয়ের নামে নানা তামাশা করে। তিনি বিএনপিকে নির্বাচনে অংশ নেয়ার জন্য আহবান জানান।
আজ জাতীয় প্রেসক্লাবে শহিদ আহসান উল্লাহ মা¯টারের ১৮তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে সন্ত্রাসমুক্ত সমাজ গঠনে রাজনীতিবিদ ও জনপ্রতিনিধিদের ভূমিকা’’ শীর্ষক এক আলোচনা ও স্মরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ দাবি জানান।
সংগঠনের সভাপতি এডভোকেট আবদুল বাতেনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমানের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত স্মরণ সভা ও আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মো. মসিউর রহমান, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এসোসিয়েশনের সভাপতি হারুন অর রশিদ হাওলাদার, বঙ্গবন্ধু গবেষণা পরিষদের সভাপতি গণি মিয়া বাবুল, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সহসভাপতি মানিক লাল ঘোষ, গাজীপুর মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি মশিউর রহমান সরকার বাবু ও সাধারণ সম্পাদক মোস্তাক আহমদ কাজল, জাতীয় শ্রমিক লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য কে. এম. শাহ আলম, গাজীপুর পেশাজীবী সমন্বয় পরিষদের নেতা আবদুল মালেক ও ছাত্রলীগ নেতা শাহজাদা মিল্টন।
২০০৪ সালের ৭ মে বিএনপি জোট সরকারের মদদপু¯ট একদল সন্ত্রাসী নোয়াগাঁও এম এ মজিদ মিয়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে তাকে প্রকাশ্যে গুলি করে হত্যা করে ।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...
#
ক্যালেন্ডার...

Sun
Mon
Tue
Wed
Thu
Fri
Sat